বাংলাদেশ | শনিবার, জানুয়ারী ২০, ২০১৮ | ৭ মাঘ,১৪২৪

বিনোদন

19-11-2017 10:48:28 AM

অপু বললেন, বিষয়টি অপপ্রচার-গুজব

newsImg

আব্রাম খান জয়কে বাসায় গৃহপরিচারিকার জিম্মায় রেখে তালাবদ্ধ করে কলকাতা গেছেন চিত্রনায়িকা অপু বিশ্বাস। দিনভর এমন গুজবই ভেসে বেড়াচ্ছিল গণমাধ্যমে। তবে বিষয়টিকে মিথ্যা অপ্রচার বলে দাবি করেছেন অপু বিশ্বাস। 
হঠাৎ করেই একা কলকাতায় যাওয়ার ব্যাপারে নিজের পক্ষে সাফাই দিয়ে অপু বলেন, 'আমি বিপদে পড়েছি বলেই কলকাতা একা চলে আসতে হয়েছে। জয়কে নিয়ে আসার পরিস্থিতি ছিল না। কারণ জয়ের শরীরটা খুব ভালো নয়। তাই ওকে নিয়ে আসিনি। আর আমি বাসার বাইরে তালা দিয়ে এসেছি এটা একদমই ভুল কথা। বাসার ভেতর থেকেই তালা দেয়া আছে। বাসার ভেতরে শেলি আপুসহ অন্যরা রয়েছেন। আমি নেই বলেই তারা ভেতর থেকে তালা দিয়ে রেখেছেন।'

তিনি আরও জানান, গত ১৬ নভেম্বর রাতে বাথরম্নমে পা পিছলে পড়ে যান। এতে তার সিজারের সময় করা সেলাই ফেটে রক্তক্ষরণ হয়। ঢাকার একটি হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়ে উন্নত চিকিৎসার জন্য শুক্রবার সকালে কলকাতায় যান তিনি। এখন সেখানকার অ্যাপোলো হাসপাতালে ভর্তি আছেন। 

শোনা যায়, শুক্রবার রাত নয়টায় রাজধানীর গুলশানের নিকেতনে অপুর বাসায় গিয়ে নাকি বাসা তালাবদ্ধ দেখতে পান ঢালিউড সুপারস্টার শাকিব খান। 
গত বৃহস্পতিবার ব্যাংকক থেকে ঢাকায় ফিরেছেন শাকিব খান। ওইদিন রাত নয়টায় অপুর নিকেতনের বাসায় যান তিনি। অপুর বাসায় গিয়ে শাকিব দরজায় কড়া নাড়লে ভেতর থেকে নারীকণ্ঠের একজন জানান, দরজা বাইরে থেকে তালা দেয়া। খোলার জন্য তাদের কাছে কোনো চাবি নেই। এ ঘটনায় শাকিব নাকি বেশ আতঙ্কিতবোধ করেন। এ সময় তিনি জিজ্ঞেস করেন, অপু কোথায় গেছেন? ভেতর থেকে উত্তর আসে বিদেশে গেছেন, কখন ফিরবেন সেটা তারা বলতে পারেননি। পরিচয় জানতে চাইলে ভেতর থেকে তার নাম শেলী বলে জানান। তখন শাকিব বলেন, 'শেলী, কোনো কিছু দরকার হলে অবশ্যই আমাকে ফোন দেবে।'
এরপর শাকিব নিচে নেমে আসেন। তখন তিনি সঙ্গে থাকা সাংবাদিকদের মাধ্যমে ঘটনাটি নিকেতন সোসাইটির নেতাদের অবহিত করেন। সন্ত্মানকে দেখতে না পেয়ে এ সময় তাকে বেশ বিমর্ষ লাগছিল বলে একটি অনলাইনের সংবাদে দাবি করা হয়। এরপর তিনি নাকি বলেন, 'এটা কীভাবে সম্ভব? মাত্র এক বছরের একটি বাচ্চা ছেলেকে কাজের মেয়ের জিম্মায় বাইরে থেকে তালা লাগিয়ে কোনো মা কীভাবে দেশের বাইরে চলে যেতে পারে? এটা সন্ত্মানের প্রতি মায়ের কেমন দায়িত্ব পালন? আমার এখনো বিশ্বাস হচ্ছে না। এটা আমি মানতে পারছি না। আমার ছেলের যদি কোনো দুর্ঘটনা ঘটে যায় তাহলে এর দায় নেবে কে?'
এ ঘটনা নিয়ে আপনি কোনো ব্যবস্থা নেবেন কি না সঙ্গি সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে শাকিব বলেন, 'ছেলের প্রতি যার দায়িত্ববোধ এটুকুই তার প্রতি ব্যবস্থা আর কী নেব! তবে আমি এ বিষয়ে অচিরেই সিদ্ধান্ত্ম নেব।' সিদ্ধান্ত্মটা কী হতে পারে তা স্পষ্ট করে না বললেও ডিভোর্সের দিকেই ইঙ্গিত দিয়েছেন তিনি।
এদিকে একটি অনলাইনে দাবি করা হচ্ছে, শাকিব-অপুর বিবাহবিচ্ছেদ এখন সময়ের ব্যাপারমাত্র। যেকোনো সময় দুজনেরই পক্ষ থেকেই ডিভোর্সের ঘোষণা আসতে পারে।

খবরটি সংগ্রহ করেনঃ- Shakila Sultana lima
এই খবরটি মোট ( 74 ) বার পড়া হয়েছে।
add

Share This With Your Friends