বাংলাদেশ | সোমবার, নভেম্বর ২০, ২০১৭ | ৫ অগ্রহায়ণ,১৪২৪

নতুন আই পি ও

08-12-2016 12:50:31 PM

একই দিনে দুই প্রতিষ্ঠানের আইপিও আবেদন!

newsImg

ব্যবসা সম্প্রসারণ ও সেবার উন্নয়নে অ-তালিকাভুক্ত কোম্পানি ও মিউচুয়্যাল ফান্ডগুলো পুঁজিবাজার থেকে প্রাথমিক গণপ্রস্তাবের (আইপিও) মাধ্যমে অর্থ উত্তোলন করে। এ ক্ষেত্রে কোম্পানি ও মিউচুয়্যাল ফান্ডগুলোর আইপিও আবেদনের তারিখ এমন ভাবে নির্ধারণ করা হয়, যাতে করে বিনিয়োগকারীরা আবেদনের সুবিধা পায়।কিন্তু সম্প্রতি প্রাথমিক গণপ্রস্তাবের (আইপিও) মাধ্যমে অর্থ উত্তোলনের অনুমোদন পাওয়া একটি কোম্পানি ও মিউচু্য়াল ফান্ডের আইপিও আবেদন একই দিনে শুরু হতে যাচ্ছে। যা নিয়ে বিপাকে পড়ছে বিনিয়োগকারীরা।বাজার সংশ্লিষ্টরা বলছেন, একই দিনে দুই কোম্পানির আইপিও অবেদনের সিদ্ধান্ত হটকারি। যা নিয়ে নিয়ন্ত্রক সংস্থার পক্ষ থেকে এখনো উপযুক্ত সিদ্ধান্ত নেওয়ার সময় রয়েছে।সূত্র জানায়, একই দিনে অর্থাৎ আগামী ১১ ডিসেম্বর আবেদন শুরু অপেক্ষায় রয়েছে-প্যাসিফিক ডেনিম লিমিটেড আর এসইএমএল আইবিবিএল শরিয়াহ ফান্ড।জানা যায়, প্যাসিফিক ডেনিমস শেয়ারবাজার থেকে অর্থ সংগ্রহে প্রাথমিক গণপ্রস্তাব (আইপিও) আবেদন আগামী ১১ ডিসেম্বর থেকে ১৯ ডিসেম্বর পর্যন্ত বিনিয়োগকারীরা এ আবেদন করতে পারবে। এর আগে বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন-বিএসইসি ৫৮২তম সভায় আইপিও’র মাধ্যমে অর্থ সংগ্রহের জন্য প্রতিষ্ঠানটিকে অনুমোদন দেয়।কোম্পানটি এই অর্থ দিয়ে ব্যবসা সমপ্রসারণ, যন্ত্রপাতি ক্রয়, অবকাঠামো উন্নয়ন, ঋণ পরিশোধ ও আইপিও খাতে ব্যয় করবে। কোম্পানিটির ইস্যু ব্যবস্থাপনা করবে এএফসি ক্যাপিটাল লিমিটেড। সাত কোটি ৫০ লাখ সাধারণ শেয়ার ছেড়ে ৭৫ কোটি টাকা উত্তোলন করবে। প্রতিটি শেয়ার অভিহিত মূল্য ১০ টাকা করে ৭ কোটি ৫০ লাখ শেয়ার ইস্যুর মাধ্যমে এ টাকা সংগ্রহ করা হবে।এদিকে, এসইএমএল আইবিবিএল শরিয়াহ ফান্ডের গণপ্রস্তাবের (আইপিও) সাবস্ক্রিপশন শুরু হবে ১১ ডিসেম্বর। আর তা চলবে ২১ ডিসেম্বর পর্যন্ত। সম্প্রতি এ ফান্ডের প্রসপেক্টাস অনুমোদন করে বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি)।সূত্র জানায়, লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছে ১০০ কোটি টাকা। ফান্ডটির উদ্যোক্তার অংশ ৫০ কোটি টাকা। প্রি আইপিও প্লেসমেন্টের মাধ্যমে ২৫ কোটি টাকা ইতোমধ্যে উত্তোলন করা হয়েছে। বাকি ২৫ কোটি টাকা সব বিনিয়োগকারীর জন্য বরাদ্দ রাখা হয়েছে; যা প্রাথমিক গণপ্রস্তাবের (আইপিও) মাধ্যমে উত্তোলন করা হবে। ফান্ডের প্রতি ইউনিটের অভিহিত মূল্য হবে ১০ টাকা। এর উদ্যোক্তা ও সম্পদ ব্যবস্থাপক যথাক্রমে ইসলামী ব্যাংক বাংলাদেশ লিমিটেড এবং স্ট্র্যাটেজিক ইক্যুইটি ম্যানেজমেন্ট লিমিটেড (এসইএমএল)। আর ট্রাস্টি ও কাস্টডিয়ান হিসেবে কাজ করছে ইনভেস্টমেন্ট করপোরেশন অব বাংলাদেশ (আইসিবি)।বাজার সংশ্লিষ্টরা বলছেন, একই সময় দুই কোম্পানির আইপিও শুরু হলে সেকেন্ডারি মার্কেটে তারল্য সংকট দেখা দিতে পারে। তাই নিয়ন্ত্রক সংস্থার পক্ষ থেকে এখনই এ সিদ্ধানের পরিবর্তন আনা উচিত।

 

 

খবরটি সংগ্রহ করেনঃ- আই-নিউজ২৪.কম
এই খবরটি মোট ( 718 ) বার পড়া হয়েছে।
add

Share This With Your Friends