বাংলাদেশ | বুধবার, নভেম্বর ২২, ২০১৭ | ৮ অগ্রহায়ণ,১৪২৪

শেয়ার বাজার

03-12-2016 10:47:43 AM

টেকনিক্যাল অ্যানালাইসিসের ভিত্তিতে লোকসান বিহীন বিনিয়োগ

newsImg

বিনিয়োগ পরিকল্পনা ও তার যথাযথা প্রয়োগ করতে না পারায় হরহামেশাই লোকসান গুনতে হয় বিনিয়োগকারীদের। কারণ পুঁজিবাজার হচ্ছে বিনিয়োগ পরিকল্পনা যথাযথ ভাবে কাজে লাগানোর জন্য অর্থ ও সময়ের যথাযথ ব্যবহারের সর্বোত্তম স্থান। এখানে কাড়িকাড়ি টাকা থাকলেও যথাসময়ে বিনিয়োগ করতে না পারলে যেমন লোকসান গুনতে হয়। ঠিক তেমনই পরিকল্পনা অনুযায়ী বিনিয়োগ করতে না পারলে লোকসান গুনতে হয়।বিনিয়োগকারীদের সমস্যা লাঘবে বর্তমান বিশ্বে পুঁজি বিনিয়োগ বিশ্লেষনের সর্বউত্তম ও গ্রহনযোগ্য পদ্ধতি টেকনিক্যাল অ্যানালাইসিসের ভিত্তিতে লোকসান বিহীন বিনিয়োগ পদ্ধিতে নিয়ে ‘ক্যাপিট্যাল মার্কেট এক্সফো-২০১৬’-এ হাজির হয়েছে ইকোসফটবিডি।যা বাংলাদেশে প্রথম।নতুন এ প্রদ্ধতির নাম ‘এলগরিদমিক অর্ডার’। এ পদ্ধতির মাধ্যমে যে কেউ অগ্রিম বাই ও সেলের অর্ডার দিতে পারবে। এক্ষেত্রে ‘RSI, MACD, EMA ইত্যাদি বাই/সেলের টেকনিক্যাল ইন্ডিকেটরের সহায়তায় অগ্রিম বাই/সেল দিতে পারবে।ধরুন, একটি কোম্পানির শেয়ার দর ২০ টাকায় অবস্থান করছে, কিন্তু ‘RSI’ রয়েছে ৪০-এ এক্ষেত্রে আপনি চাচ্ছেন এ কোম্পানিটির শেয়ার দর আরো নিচে নামলে আপনি কিনবেন। সেক্ষেত্রে আপনি সর্বনিম্ন আরএসআই সিলেক্ট করে, ক্রয় অর্ডার দিয়ে রাখলে। আপনি না থাকলেও সর্বনিম্ন দরেই ওই শেয়ারটি আপনার পোটফলিওতে যুক্ত হবে।একই প্রক্রিয়া আপনি শেয়ারটিতে কোন ঝুঁকি না নিয়েই বিক্রি করতে পারবেন। এক্ষেত্রে শেয়ার ক্রয়ের পর আপনি ‘RSI’ ৮০ সেলেক্ট করে রেখে দিলে, যখনই আরএসআই ৮০-তে উঠবে তখনই শেয়ারটি সংক্রিয় ভাবে বিক্রি হয়ে যাবে।একই ভাবে MACD, EMA সহ অন্যান্য বাই/সেল ইন্ডিকেটরের মাধ্যমে আপনি সংক্রিয় ভাবে বাই সেল করতে পারবেন। এছাড়াও আপনি ইচ্ছে করলেই RSI, MACD, EMA ইত্যাদি বাই/সেলের টেকনিক্যাল ইন্ডিকেটরের সমন্বয় করে বাই কিংবা সেল অর্ডার দিতে পারবেন।এছাড়াও ‘অ্যাডভান্স অর্ডার’ নাম নতুন আরো একটি পদ্ধতি নিয়ে এসেছে ইকোসফট। সাধারণত আমরা মার্কেট আওয়ারে কোন শেয়র বাই /সেলের অর্ডার দেই। মার্কেট আওয়ার শেষ হয়ে গেলে ওই অর্ডারটিও বিলুপ্ত হয়ে যায়। কিন্তু ইকোসফটবিডির ‘অ্যাডভান্স অর্ডার’ পদ্ধতির মাধ্যমে আপনি ইচ্ছে করলেই আজই ৬ মাস পরের কোন বাই কিংবা সেল অর্ডার প্রদান করতে পারবেন।মনে করুন, কোম্পানির একটি শেয়ারের দর ৩৫ টাকা, কিন্তু কোম্পানিটির সর্বনিম্ন দর হচ্ছে ১৮ টাকা। আপনি কোম্পানিটির শেয়ার ১৮.৫০ টাকা হলেই কিনবেন। সেক্ষেত্রে আপনি আজই ১৮.৫০ টাকায় বাই দিতে পারবেন। যেদিন কোম্পানিটির শেয়ার আপনার কাঙ্কিত মূল্য আসবে, ওই দিনই আপনার অর্ডার প্রয়োগ হবে বা ওই শেয়ার আপনার অ্যাকাউন্টে চলে যাবে।ইকোসফট বিডির ব্যবস্থাপনা পরিচালক সরাফত আলী সুজন শেয়ারনিউজ২৪ ডটকমকে বলেন, এই দুই প্রক্রিয়া আপনি ইচ্ছে করলেই ঝুঁকি বিহীন ভাবে শেয়ার ব্যবসা করতে পারবেন। উন্নত বিশ্বে এ সুবিধা থাকলেও বাংলাদেশে ইকোসফট প্রথম এ প্রদ্ধতি নিয়ে এসেছে।তিনি বলেন, যাদের টাকা আছে, কিন্তু বিশ্বাস করার মত কেউ নেই তারা এই সফটওয়্যারের মাধ্যমে ঝুঁকি বিহীন ভাবে বিনিয়োগ করতে পারবেন।সরাফত আলী আরো বলেন, এই সফটওয়্যার ব্যবহারের জন্য গ্রাহকদের বাড়তি কোন কমিশন দিতে হবে না। পাশাপাশি সফটওয়্যারের মাধ্যমে দ্রুততম অর্ডার লক,এক্সিকিউশন ও মেইল এবং এসএমএস-এর মাধ্যমে নাটিফিকিউশেনের ব্যবস্থা রয়েছে।তিনি আরো বলেন, হাউজে না এসেই সরাসরি অনলাইনের মাধ্যমে টাকা জমা এবং উত্তোলনে সুবিধা, রিয়েলটাইম ফোর্টিফোলিও এবং লেজার ব্যাক অফিস থেকে সরাসরি অনলাইনে দেখার এবং প্রিন্ট নেওয়ার সুবিধা রয়েছে।

 

খবরটি সংগ্রহ করেনঃ- আই-নিউজ২৪.কম
এই খবরটি মোট ( 411 ) বার পড়া হয়েছে।
add

Share This With Your Friends