বাংলাদেশ | শুক্রবার, নভেম্বর ২৪, ২০১৭ | ৯ অগ্রহায়ণ,১৪২৪

বানিজ্য

28-03-2016 03:22:27 PM

১৫ বছর পর ফাঁকির ৭০০ কোটি টাকা আদায় হচ্ছে

newsImg

ঢাকা : যমুনা গ্রুপের সিস্টার কনসার্ন অ্যারোমেটিক কসমেটিক্সের ভ্যাট ফাঁকির প্রায় ৭০০ কোটি টাকা আদায় করবে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর)। সম্প্রতি সুপ্রিমকোর্টের আপিল ডিভিশনে নিষ্পত্তিকৃত দুটো রিট মামলার সূত্রে লিভ-টু-আপিল পিটিশনের নিষ্পত্তি সরকারের পক্ষে রায় হওয়ায় এই টাকা আদায় করা হবে।
 
রোববার এনবিআর জনসংযোগ কর্মকর্তা ও সিনিয়র তথ্য কর্মকর্তা সৈয়দ এ, মু’মেন বাংলামেইলকে এ তথ্য নিশ্চিত করেন। 
 
এনবিআর সূত্রে জানা যায়, ১৯৯৬ থেকে ২০০০ পর্যন্ত অ্যারোমেটিক কসমেটিক্স ভ্যাট ও সম্পূরক কর ফাঁকি দেয়ায় দুটো দাবিনামা জারি করে ঢাকা উত্তর ভ্যাট কমিশনারেট। ভ্যাট আইনে শোকজ ও শুনানি শেষে ভ্যাট ফাঁকি ও অর্থদণ্ড বাবদ দুই মামলায় ১৭৪.৪৯০ কোটি টাকার দাবিনামা জারি করলে প্রতিষ্ঠানটি সময়ক্ষেপণ করে। পরবর্তীতে ২০০৩ সালে হাইকোর্ট বিভাগে ৩০২৭/০৩ ও ৩০২৮/০৩ এর মাধ্যমে রিট মামলা করলে দাবিকৃত ভ্যাট আদায় ঝুলে যায়। পরবর্তীতে শুনানি শেষে হাইকোর্ট রিট দুটো খারিজ করে দেন।

দীর্ঘ দিন উচ্চ আদালতে বিচারাধীন থাকায় ফাঁকিকৃত টাকা আদায় করতে পারেনি ভ্যাট কর্তৃপক্ষ। সম্প্রতি এনবিআর মামলা দুটো নিষ্পত্তির উদ্যোগ নিলে গত ১৬ মার্চ চূড়ান্ত শুনানি শেষে পূর্ণাঙ্গ বেঞ্চ সরকারের পক্ষে রায় দেয়া হয়।
 
ভ্যাট আইন অনুযায়ী ভ্যাট পাওনা হওয়ার পর তা জমা না দিলে প্রতিমাসে ২ শতাংশ হারে সুদ দিতে হয়। বছরে ২৪ শতাংশ সুদ হিসেবে ১৭৪ কোটি টাকার ওপর এই পাওনা হয়েছে। বর্তমানে ভ্যাট কর্তৃপক্ষ এই পাওনার হিসেব করে সুদসহ মোট পাওনার পরিমাণ দাঁড়াবে প্রায় ৭০০ কোটি টাকা।

শুনানিতে যমুনা গ্রুপের পক্ষে ছিলেন ব্যারিস্টার রোকনউদ্দিন মাহমুদ ও ব্যারিস্টার মওদুদ আহমেদ। আর সরকার পক্ষে ছিলেন অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম ও ডিএজি এস এম মনিরুজ্জামান।
 
এনবিআর চেয়ারম্যান মো. নজিবুর রহমান  এ বিষয়ে বলেন, চলতি অর্থবছরের বাজেটে রাজস্ব লক্ষ্যমাত্রা অর্জনের জন্য প্রধানমন্ত্রী ও অর্থমন্ত্রীর নির্দেশনা অনুযায়ী দীর্ঘদিন ধরে আদালতে ঝুলে থাকা মামলা নিষ্পত্তিতে অগ্রাধিকার দেয়া হয়েছে। বড় বড় মামলা নিষ্পত্তির ব্যাপারে অ্যাটর্নি জেনারেল অফিসের সাথে যোগাযোগ রক্ষা করে বিশেষ উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। এতে করে সরকারের রাজস্ব আদায়ে যেমন অগ্রগতি হবে, তেমনি কর ফাঁকিবাজদের কাছে বার্তা যাবে।
 
তিনি আরো বলেন, রাজস্ব আদায়ে এনবিআর আগের তুলনায় এখন অনেক বেশি সক্রিয় রয়েছে। দীর্ঘদিন ধরে এরোমেটিক কসমেটিক্সের বিরুদ্ধে দুটো মামলার বিপরীতে প্রায় ১৭৪ কোটি টাকার ভ্যাট আদায় ঝুলে ছিল। আপিল ডিভিশনের সর্বশেষ শুনানিতে এনবিআরের পক্ষে রায় ঘোষিত হয়েছে। এখন সরকারকে এই পাওনা টাকা দিতে হবে।

খবরটি সংগ্রহ করেনঃ- i-news24.com
এই খবরটি মোট ( 635 ) বার পড়া হয়েছে।
add

Share This With Your Friends